Wednesday, April 17, 2013

ফেসবুকে আলোচনা করা না করা নিয়ে বিতর্ক

খেয়াল করে দেখবেন আপনারা। এই গ্রুপে অনেক সদস্য পোস্ট করেন । বড় ছোট সবাই এবং সব গ্রুপে পোস্ট করার আগে এই গ্রুপেই আগে করেন। আমি নিজেও তাই করি। কিন্তু আমাদের মধ্যে কিছু মহাজ্ঞানী আছেন তাদের সেই লেখা বা অনুভূতিগুলো খেয়াল করার সময় হয়না অনেকের। তাঁরা সেই সহজ সরল কথাগুলো ভদ্রভাবে এড়িয়ে চলেন। ফলে অনেকেই লেখার বা চিন্তা করার উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন।
দাদাদের অনুরোধ করব ছোট বড় সবাইকে গুরুত্ব দেন, দেখবেন সবার মধ্যে উৎসাহ জিনিসটা এসে গেছে।

খালি জ্ঞানগম্ভীর কিছু বুলি আউড়াইয়াই খেল খতম কইরেন না। আমাগোর মত পিচ্চিদেরও উৎসাহিত কইরেন। কমেন্ট করার আলসি লাইগলে অন্তত একটা লাইকায়েন। এতেই এনাফ।

অপ্রিয় কিছু সত্য কথা কইয়া ফালাইলাম। ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখনের দরকার নাই। যে যেভাবে পারেন গায়ে মাইখেন।

  • Mithun Chakma Jumma Priyangshu Chakma, এই গ্রুপের লেখা পড়ার চেষ্টা করি, মন্তব্য করারও চেষ্টা করি। কিন্তু ইদানীং পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে চলে গেছে যে কিছু লেখা পড়তেও ইচ্ছে করে না। ভালো লেখায় মন্তব্য থাকে না। কিন্তু উস্কানীমূলক লেখায় মন্তব্য দেদার। অবস্থাদৃষ্টে মনেহয় চটপটি মার্কা লেখায় মন্তব্য করে আমরা মজা পাই। সিরিয়াস কোনো আলোচনা বেশিদূর এগোয় না ।
  • Priyangshu Chakma আপনার কথায় মেলা যুক্তি মিথুন দা, কিন্তু আমাদের উচিত কাঙ্খিত আলোচকদের আহবান করা যেমনটা আপনি আমাকে করলেন।
  • Mithun Chakma Jumma Priyangshu Chakma, ব্যক্তিগতভাবে খোলামেলা হয়ে দায়িত্ব নিয়েই আলোচনা করার চেষ্টা করি। কিন্তু আলোচনা অনেক সময় এত হালকা বিষয়ে হয়ে থাকে যে আলোচনা এগিয়ে নেবার কোনোই মানে হয় না বলেই মনে হয়। গতকাল রাতে একটি ফটো পোস্ট করি। এক ছোটভাইয়ের আইড হ্যাক্ড হবার পরে সেই আইডি থেকে যে ব্যক্তি হ্যাক্ড করেছে সে এমন আলোচনা করতে চেষ্টা করেছে যে আমি থমকে গিয়েছিলাম।
  • Mithun Chakma Jumma আমি পার্টি কর্মী। পার্টির সকল বিষয়ে আমার জানাশোনা না থাকলেও কাজের মধ্যে আছি বিধায় যেকোন কথা কাজকে বিবেচনা করেই করি। অন্যের মতো যা তা বলে, হালকা আলোচনা করে সময় কাটানোর কোনো ইচ্ছেই নেই। সুতরাং যখন আলোচনা করি তখন দায়িত্ব নিয়ে আলোচনা করার পরও তো দেখি সিরিয়াস আলোচনা করার মতো খুবই কম ব্যক্তিই থাকে! এখানে একটি বিষয় বলে রাখি যা বলি তা বাস্তবায়ন করার মতো থাকলে তা বাস্তবায়নের চেষ্টা থেকেই বলি। সুতরাং যেখানে সেখানে শুধু মন্তব্য-বিতর্ক করার মানসিকতা রাখি না। যেমন, উদাহরণ দিই। ক'দিন আগে এক অর্থবান জুম্ম হেলিকপ্টার ভাড়া করে বিয়ে করলো। সেখানে আমি বক্তব্য রেখেই ক্ষান্ত থাকাতে বিশ্বাস করি না। যেহেতু কোনো বাস্তব পদক্ষেপই নিতে পারিনি সেহেতু কথা বলা বা সমালোচনা বা মন্তব্য করারই ইচ্ছে ছিলো না। রাশি মারা গেলো। ছোটভাই অজল যখন আবেগি মন্তব্য করলো তখন ইচ্ছে হলো কিছু বলি। কিন্তু হয়তো আমার চাছাছোলা কথায় ভুল মিনিঙ বের হবে এই চিন্তা করে আর কথা বাড়াইনি। ক'দিন আগে ইউপিডিএফএর অর্থসহায়তা নিয়ে কথা বললাম। কিন্তু এক পর্যায়ে সত্যিকার একটি উদাহরণ দেবার পরে এক ছোটভাই মন্তব্য করলো, "দাদা @ বেয়াদবি মাফ করবেন] শেষকালের শেষ বাক্যগুলো দিবেদিয়ে পণ্ডিতের দাম্ভিকতা হইয়া কানে বাজিল। জেএসএস/ ইউ পিডিএফ এইসব ব্যাপারে শতভাগ স্ট্রিক্টেড/রেস্ট্রিক্টেড থাকে বলে আমি মুখ্যসুখ্য মানুষ জুম্ম রাজনৈতিক জ্ঞানী হইতে পারিনি। আক্ষেপ আপনারা জ্ঞানী হইয়া কিছু দিতে অপারগ আমি অজ্ঞানী হইয়া কাজে লাগলাম না। ননাদের রাজনীতি পাঠ অদ্ধঙগ থাকল।"। আমি দাম্ভিকতা দেখানোর জন্য কথা বলি না। যা বলি পরিস্থিতিকে বোঝানোর জন্যই বলি। তা যতই চাছাছোলা বা কঠিন কঠোর হোক না কেন। কিন্তু কেই- বা চায় অন্যের চোখে দাম্ভিক হতে! ইচ্ছে করে নিজের জ্ঞান জাহির করতে!
  • Priyangshu Chakma আমাদের সবার কমবেশি ভূল ভ্রান্তি থাকে। কিন্তু সবার খেয়াল রাখা উচিত যে সবখানে হিউমার নিয়ে আসাটা সমিচিন নয়। তবে পরিস্থিতি হাল্কা করার জন্য মাঝে মাঝে রসও লাগে বৈ কি।
    তবে গালা গালির করার ব্যাপারে বলব, আমাদের মধ্যে টলারেন্সের খুব অভাব।
     
     

    • Mithun Chakma Jumma এখানে একটি কথা বলি, আমি আমার যেকোন বক্তব্য, মতামত, চিন্তাগত অবস্থান নিয়ে জবাবদিহি দিতে প্রস্তুত। কিন্তু অযথা নিজেকে 'জাহির মানসিকতা' 'দাম্ভিকতা বা বড়াই দেখানো' 'পান্ডিত্য জাহির করা' 'জ্ঞানী ভাব নেয়া' এ সকল কোনকিছুই আমার হবার ইচ্ছে নেই। আমি কথা বলি জাতিসত্তার লড়াইয়ে আমার দায়িত্ব পালনের খাতিরে। পার্টি আমাকে বলেনি যে তুমি ফেসবুকে লেগে থাক। আমার কথা জানানোর জন্য বলি। আমার চিন্তা জানানোর জন্য বলি। আমি যা করার চেষ্টা করছি তা জানানোর জন্য বলি। যা বলি তা কাজে পরিণত করার খাতিরেই বলি। যা বলি না তা কার্যকর করার যোগ্যতা না থাকার কারণেই বলি না। এটাই আমার ব্যর্থতা। এটাই বাস্তব সীমাবদ্ধতা! যাহোক অনেক কথা বললাম! না বলতে চাইলেও বললাম। কারণ উপায় ছিলো না। ডিবেদিয়ে পন্ডিত হবার কোনো ইচ্ছে নেই এবং 'পন্ডিত হোলেবার' ইচ্ছেও নেই। ভুল বোঝাবুঝি যাতে না হয় তার জন্যই এত কথা বলা।

Tuesday, April 16, 2013

জনগণের কাছ থেকে পার্টির অর্থসহায়তা নিয়ে ফেসবুকে বিতর্ক-৩

  • Mithun Chakma Jumma ডিয়ার Jr Karbari এটা সামান্য একটি অভিযোগের কথা বলছি যা জনগণের কাছ থেকে এসেছে। এরকম শত হাজার সমস্যা একজন পার্টিকর্মীকে সয়ে যেতে হয়। এখন কোনো সিদ্ধান্তের মধ্যে সামান্য ভুল হলেই গেল গেল বলে চিৎকার করা নিয়ে বলছি। তাই প্রশ্ন রাখছি জনগণের কাছ থেকে আসা সামান্য একটি অভিযোগের সমাধান আমি যখন করবো তখন কিভাবে করতে হবে? না কি না বুঝেই আপনি দোষারোপ করতে থাকবেন?
  • Mithun Chakma Jumma ডিয়ার Odong Chakma, আমি ব্যক্তির মত নিয়ে কথা বলছি না। বলছি সামষ্টিকভাবে আমাদের যে দায়িত্ব রয়েছে তা জানানোর জন্য। আামর উপরের লেখা পড়ে মন্তব্য করুন। আমি এখানে পার্টির প্রতিনিধিত্ব করে বক্তব্য দিতে আসিনি।
  • Nona Changma মিথুন দাদা@ কার্বারিদার সুর ধরে বলিতেছি গণতান্ত্রিকতার অংশ হইয়া আমরা সাধারণ পাবলিক জেএসএস/ইউপিডিএফ দল বা নেতা বা কর্মী হতে কোন বিষয়ে সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা চাইতে পারি। সেবকের কাছে সেবার বৃতান্তের পাইবার অধিকার উপকারভোগী সংরক্ষণ করে হেতু চাঁদা/সহায়তার বিষয়ে দলীয় ব্যাখা চাই প্লাস ব্যক্তিগত মতামত চাই। এখন দুধ চাইলে জল মেশানো পাই অর্থাৎ দলীয় ব্যাখা চাইলে রেষারেষি ফ্রি পাই। অমুকে সমুকের কি জুড়েছে মেরেছে ভেঙেছে সেটা নিয়ে গবেষণার পূর্বে জনগণ কি প্রক্রিয়ায় কি পেতে যাইতেছে তার ব্যাখা দিলে খুশি হই। মোদ্দা কথা, সচ্ছতা আনেন।
  • Mithun Chakma Jumma ডিয়ার ননা চাকমা, এতসব কথা আমার বলার কোনো ইচ্ছে নেই এবং সেই ব্যক্তিটির পরিচয় আমি জানাই নি। কিন্তু যারা সামাজিকতার দায়বদ্ধতাকে কেয়ার করে না তাদের কাছ থেকে রাজনৈতিক দায়বদ্ধতা দায়িত্ব আমি আশা করতে পারিনা। শুধু কথা বলতে ইচ্ছে হলো বলেই বললাম কিন্তু নিজে সেই কথার মান রাখি না তাই-ই তো এখন সমাজের চলন! আমাদের রাজনৈতিক নেতারা থেকে শুরু করে সবাইতো এমন! বলছি কাউকে দুঃখ দেয়ার জন্য এই কথা বলছি না। সামষ্টিক দায়বদ্ধতার কথা বলছি।
  • Jr Karbari হাঁ একজন বিচারক অবশ্যই উভয় পক্ষের ভাষ্য শুনে বিচারের রায় দেবে ! তবে যে প্রসঙ্গ চলে এসেছে তা বাদী বিবাদী গ্রুপের সম্পর্ক নয় ,একটি পত্রিকার মন্তবই !একটি পার্টিকে নিয়ে অনেক মিত্থ্যাচার হতে পারে ,তবে যদি মিত্থ্যা হয় প্রতিবাদ করতে ,যুক্তি করতে অসুবিধা কোথায় ?
  • Mithun Chakma Jumma আমার কর্মীদের আমি বলি, এত বই পড়ার দরকার নেই, জানারও দরকার নেই। প্রথমে যা দরকার হচ্ছে, কথায় কাজে মিল থাকা। যা বলবে তাই-ই করবে। যা সিদ্ধান্ত নেবে তাই-ই করবে। একটি জাতির উন্নতির জন্য যা দরকার তা হচ্ছে ইংরেজীতে বোধহয় 'পাঙচুয়ালিটি'। কথায় কাজে মিল থাকা।
  • Odong Chakma ননা ভেইধন, ওরা আমাদের অধিকার রক্ষার কথা বলেন, কিন্তু আমরা কী অধিকার চাই সে ব্যাপারে আমাদের সাথে কথা বলবেন না! কে ওদেরকে অধিকার দিয়েছে চাঁদাবাজি করে দস্যূতাগিরি করে আমাদের অধিকার রক্ষা করতে হবে?আমার অধিকার, আমি একটুও কথা বলতে পারবো না?
  • Mithun Chakma Jumma Jr Karbari বাবু, সে কথাই আমি বলছিলাম। কিন্তু সবাই এই পত্রিকায় কী লিখেছে তা নিয়েই বেশি কথা বলছে, সমালোচনা করছে। এখন এই পত্রিকাটি কেন এ্ রিপোর্টটি লিখেছে তা নিয়ে তো কথা হচ্ছে না।
  • Mithun Chakma Jumma ডিয়ার Odong Chakma, আপনার কথা বলার অধিকার কেড়ে কে নিয়েছে? এত সেন্টিমেন্টাল ইস্যু নিয়ে সেন্টিমেন্টাল কথা বললে কী হবে! যা বলিনি তাই-ই যদি আমাদের কথা বলে চালান তবে কীভাবে কথা এগোবে?
  • Jr Karbari সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং ব্যক্তির দায়বদ্ধতা আর দলীয় দায়বদ্ধতা ভিন্ন ! যেমন স্বামী স্ত্রীর সম্পর্কের কথা বাপ ,মাকে বলা যায়না ! প্রেমিক প্রেমিকার সম্পর্কের কথা সমাজকে বলা যায়না ,দলীয় স্বার্থের কথা পাবলিক ফোরামে বলা যায়না ,দেশীয় স্বার্থের কথা বিদেশে বলা যায়না ! যে বা যিনি আপনার কাছে বিচার প্রাত্থী হয়ত না বুজে বলে ফেলেছে !
  • Odong Chakma মিঠুনবাবু, কম তো দেখলাম না, কম তো বললাম না। কথা বলা কত যে বিপদজনক তা হারে হারে টের পাচ্ছি প্রতিনিয়ত। আমাদের কথা বলার অধিকারটা নির্বিঘ্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আবার ধরে নেবেন না, আপনাকে বলছি। সামগ্রিকভাবে রাজনৈতিক নেতাদের কখা বলছি। রাজনৈতিক নেতাদের কত চরিত্র দেখলাম - সে কারণে জুম্ম নেতাদের ‘নেতৃত্বের গুণাবলী ও স্টাইল নিয়ে আমার খুব প্রশ্ন রয়েছে। নেতা বলে মাইন্ড করবেন না। অন্যদের তো পাই না, অন্তত আপনাকে (আর দু’একজনকে) পাই। সে জন্যে ধন্যবাদ।
  • Nona Changma অডঙ দা@ মিথুন দা@ কার্বারি দা@ মানুষ গুগলে সরকার নিয়ে বেশি সার্চ করে বলে চীনা সরকার গুগল ব্যান করে সরকারি সার্চ ইঞ্জিন বাইদু বসায়ে দিল । জুমের রাজনীতির পলিসি দেখলে মনে হয় নেতারা বাইদু নয় হাতে ল্যাম্প ধরায়ে সুড়ঙ্গের মুখে ফেলে দিয়ে বলবে “যাও হাওয়া খেয়ে আস”। এর চাইতে বেশি কিছু বলার নেই।
  • Nona Changma Mithun dada@ রাত জেগে কষ্ট করে উত্তর দেয়ার জন্য জু জু টা দিয়ে গেলাম/ সহায়তা দিচ্ছি ফল না পেলে গেল দিচ্ছি মাইন্ড করবেন না/ অহক কধা বলে বেড়াই/ জু জু ।।
  • Mithun Chakma Jumma বিপদজনক-এর কথা বলছেন! একটু মজা করি। আপনারা ছদ্ম আইড ব্যবহার করে বিপদ টের পান। আমি বোধহয় পাই না! সুপ্রভাতে যা লেখা হয়েছে তাতে কি আছে এবং এতে পার্টির কী সীমাবদ্ধতা নিয়ে আমি কথা বলেছি। এবং এই কথা দায়িত্ব নিয়েই বলেছি। কিন্তু কেন এই লেখাটি ছাপা হয়েছে? তা কার পারপাজ সার্ভ করে? পার্টির নানা সমস্যা দুর্বলতা নিয়ে আমাদের অবশ্যই কথা বলতে হবে কিন্তু তা এমনভাবে করা প্রয়োজন যাতে পার্টির ভুল ধরিয়ে দেয়া যায় কিন্তু তাতে অন্য কেউ যেন ফায়দা না লুটতে পারে।
  • Odong Chakma মিঠুনবাবু, আমার আইডি ছদ্ম বললে খুব বেজার হই। এটা ছিলো আমার ছোট বেলার নাম, এখন আমার খুব ভালো লাগে। দ্বিতীয় কথা, আমরা যা বলছি সেখানে কারোর ফায়দা লুটার সুযোগ আছে বলে মনে করি না। যা বলছি, আপনাদের পার্টির অসংগতিগুলো তুলে ধরার চেষ্টা করছি।
  • Mithun Chakma Jumma যাহোক আজকে ঘুমাতে হবে! সবাই ভালো থাকবেন। কাউকে দুঃখ দিয়ে থাকলে ক্ষমাদৃষ্টিতে দেখবেন। দুঃখ দেয়ার জন্য এত কথা বলিনি, বাস্তবতাকে বুঝতে যাতে সুবিধা হয় তার জন্য এত কথা বলা। ভালো থাকবেন। ভালেদি থেল'।
  • Jr Karbari মিথুন ভাই@ সত্য বলতে কি ছদ্ম আইডি ব্যবহার ফেসবুকে কেন করতে হয় ,তা অবশ্যি জানা থাকার কথা ! তবে আমার মতে ব্যবহার করলেও দায়িত্ববোধ নিয়ে করাই ভালো ,কচ্ছপের খোলস যাদের থাকে তাদের ব্যবহার না করলেও চলে ! যাক সুভো রাত্রি, সবাইকে বিজুর সুভেচ্ছা !
  • Odong Chakma দু:খকে অতিক্রম করার চেষ্টা করছি। কাজেই চিন্তা করার কোন কারণ নেই। আলোচনা হবে, বিতর্ক হবে। শুভ হোক বিজু! শুভরাত্রি!
  • Fora Sam apnader debate-ta khub vhalo laglo r shesh-tao shudor vhabe korechen....... dhonnobad.... sobaike BIZU-r Subechcha....
  • Newton Chakma জু জু বেক্কুনরে বিঝুর লাম্বা সালাম জানাঙর...
  • Sujay Chakma Jumma এখানে আঞ্চলিক একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে বেশ জোরে শোরে আলোচনা হতে দেখলাম। যারা এ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেছিলেন তাঁদের প্রতি আমার বিনীত প্রশ্ন- আপনারা কী সেই কথিত চাঁদা চেয়ে দেয়া চিঠিটির খোঁজ নিয়েছিলেন ? কে সংবাদটি তৈরী করলো, কেন করলো, সংবাদটির উৎস কী এসব কী আপনাদের জানার কোন আগ্রহ আছে ?
  • Sujay Chakma Jumma সরকার বা শাসকগোষ্ঠী পার্বত্য চট্টগ্রামের আন্দোলনকারী শক্তিসমূহকে চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীর কফিনে বন্দি করে রাখার অপচেষ্টা নুতুন নয়। কাজেই সুপ্রভাত বাংলাদেশ পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদটি নিসঃন্দেহে সেরকমই একটি চক্রান্ত ছাড়া কিছুই নয়। একটি রাজনৈতিক দল জনগণের কাছ থেকে সহযোগীতা চাইতে পারে, সেটি হোক আর্থিক বা অন্য কিছু। এটা মোটেই দোষের কিছু নয়। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর যত গণতান্ত্রি দল বা সংগঠন এমনকি সরকারও জনগণের কাছে থেকে নেয়া অর্থের উপর নির্ভরশীল। এখানে ইউপিডিএফ-কে জরিয়ে যে সংবাদ পরিবেশিত হয়েছে তা একেবারেই উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও ষড়যন্ত্রমূলক। সংবাদটি সেই বিশেষ গোষ্ঠীকেই সাহয্য করবে যারা দীর্ঘ প্রায় চল্লিশ বছর ধরে আমাদের জাতীয় অস্তিত্বকে ধ্বংস করার কাজ চালিয়ে আসছে। আমরা অতীতেও দেখেছি, শান্তি বাহিনীর আমলেও কোন সময় তাঁদেরকে বিদ্রোহী বা সংগ্রামী বলে স্বীকার করে কোন সংবাদ প্রেরণ করেনি এসব জলপাই সংবাদকর্মীরা। তাঁরা সবসময় আমাদের অধিকার আদায়ের কঁচিকাঁচা সপ্নগুলোকে তাঁদের সেই নির্মম ও নিষ্ঠুর আঙ্গুল দিয়ে খুচিয়ে খুচিয়ে অংকুরে বিনষ্ট করার অপচেষ্টা করেছিল বারবার। তাই উক্ত সংবাদটির উপর ভিত্তি করে যারা প্রাসঙ্গিক ও অপ্রাসঙ্গিক আলোচনা করেছেন তাদের প্রতি পার্বত্য চট্টগ্রামের বাস্তবতার আলোকে সবকিছু আমলে নেয়ার অনুরোধ রইল।
  • Jr Karbari সুজয়্বাবু@ পরে হলেও আলোচনায় অংশ নেবার জন্যে ধন্যবাদ ! হা পার্বত্য রাজনৈতিক দলগুলিকে নিয়ে শাসক চক্রের খেলা নতুন কিছু নয়,তবে যদি মিথ্যাচার হয়ে থাকে আপনাদের দলীয় তরফ থেকে লিখিত প্রতিবাদ করা উচিত ! যাতে জুম্ম পাবলিকের সাথে গনতান্ত্রিক প্রক্রিয়াতে সুস্পষ্ঠ জবাব দিহিতা থাকে !প্রতিনিধিত্ত্বশীল সংঘঠন হিসাবে যে কোন চক্রান্তের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ান যে কোন পার্টির নৈতিক দায়িত্ব !